শুক্রবার, ২৬ জুলাই, ২০১৯

পদ্মা সেতু নিয়ে ছেলে ধরা গুজব প্রতিরোধে জনসচেতনতা- সিলেট >> SSTV Bangla



সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার(মিডিয়া ও কমিউনিটি সার্ভিস) জেদান আল মুসা, গত 25/07/2019 ইংরেজি তারিখে পদ্মা সেতু নিয়ে ছেলে ধরা গুজব প্রতিরোধে জনসচেতনতা বৃদ্ধির নিমিত্তে উপশহর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে সম্মানিত শিক্ষক-শিক্ষিকা, ছাত্রী ও অভিভাবকদের মধ্যে সচেতনতামূলক প্রচার অভিযান।


পদ্মা সেতুতে মানুষের মাথা বা রক্ত লাগবে বলে গুজব ছড়িয়ে একটি স্বার্থান্বেষী মহল নিজেদের স্বার্থ হাসিল করছে বলে জানিয়েছেন সিলেট জেলা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার মাহবুবুল আলম।

বৃহস্পতিবার পুলিশ সুপারের কার্যালয়ের কনফারেন্স হলে আয়োজিত প্রেস ব্রিফিংয়ে তিনি একথা বলেন।



এই গুজব প্রতিরোধে পুলিশ সক্রিয় এবং এ ব্যাপারে ব্যাপক প্রচারণা চালাতে তিনি সিলেট গণমাধ্যম কর্মীদের প্রতি উদাত্ত আহবান জানান।

প্রেস ব্রিফিংয়ে মাহবুবুল আলম বলেন, পদ্মা সেতু নিয়ে একটি মহল গুজব ছড়িয়ে ফায়দা হাসিল করছে। ইতিমধ্যে সন্দেহবশতঃ দেশের বিভিন্ন স্থানে কয়েকটি হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। তবে সিলেটে তেমন কিছু ঘটেনি। জনগন, পুলিশ ও মিডিয়া কর্মীদের সচেতন ভূমিকার কারণে এই কলংক থেকে সিলেট জেলা এখনো মুক্ত।

তিনি বলেন, আইজিপি বিষয়টি মনিটরিং করছেন এবং তার নির্দেশে সিলেটসহ সারাদেশে পুলিশ গুজব প্রতিরোধে মাঠে নেমেছে।

তিনি বলেন, গুজব ছড়ানো বা এতে প্রভাবিত হয়ে কোন কাজ করা ফৌজদারি অপরাধ। এ ব্যাপারে আরো প্রচারণা চালাতে তিনি গণমাধ্যম কর্মীদের প্রতি আহবান জানান।



প্রিয়া সাহার বক্তব্য প্রসঙ্গে সিলেটের ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার বলেন, তার বক্তব্যকে কেন্দ্র করে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির সিলেটে যেনো কেউ কোন সুযোগ নিতে না পারে, সে ব্যাপারে সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে। একইভাবে বিদ্যুতের থাকা না থাকা নিয়ে যা বলাবলি হচ্ছে তাও মিথ্যা বানোয়াট প্রচারণা বলে উড়িয়ে দিয়েছেন তিনি।

তিনি আরো বলেন, যেসব ফেসবুক অ্যাকাউন্ট বা অনলাই সংবাদ পত্র থেকে গুজব ছড়ানো হচ্ছে, আমরা সেগুলো মনিটরিং করছি। দ্রুত তাদের ব্যাপারে কার্যকর ব্যবস্থা নেয়া হবে।

প্রেস ব্রিফিংয়ে আরো উপস্থিত ছিলেন- অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আমিনুল ইসলাম, সহকারি পুলিশ সুপার আনিসুর রহমান খান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর) লুৎফর রহমান।

শেয়ার করুন

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.

0 coment rios:

ধন্যবাদ আপনার সচেতন মন্তব্যের জন্য।