সোমবার, ২২ জুলাই, ২০১৯

চট্টগ্রামে গৃহশিক্ষকের হাতে ধর্ষণ ৬ষ্ট শ্রেণির ছাত্রী এবং শিক্ষক গ্রেফতার | SSTV বাংলা



চট্টগ্রামের হালিশহর থানা এলাকার শান্তিবাগ গৃহ শিক্ষক সোনিয়া আক্তার( ১৪) নামে ৬ষ্ট শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণ করল । জানাযায় সে নগরীর আগ্রবাদ টিএন্ড টি কলোনী উচ্চ বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রী।
সে পিতা ও মাতার সাথে শান্তিবাগ, রোড নং -০৫, আমির প্রফেসারের বাসায় ভাড়া থাকে ।



একই এলাকা বাসিন্দা তালুকদারের বিল্ডিং এর পঞ্চম তলায় মোঃ রায়হান (২১) এর বাসা, ঐ বাসায় রায়হান দীর্ঘ দিন সোনিয়কে প্রাইভেট পড়ায়, গত ডিসেম্বর ১৮ইং হতে উক্ত প্রাইভেট টিচার বাসায় প্রাইভেট পড়া শুরু করার পর থেকে রায়হান মেয়েটিকে নানা প্রলোভন দেখিয়ে অনৈতিক কাজ করে আসতেছে।

গত ২৮ জানয়ারী সন্ধায় ৭ টায় সময় রায়হানের বাসায় কেউ না থাকার সুবাধে জোর পূর্বক সোনিয়া কে ধর্ষন করে। বিষয়টি প্রকাশ না করার জন্য মেয়েটিকে ভয় ভীতি দিয়ে বিদায় করে দেয়। মেয়েটি এক পর্য্যায়ে গোপন রাখা চেষ্টা করে। একই ভাবে গত ১০ জুন সকাল ১০টায় মিথ্যা কথা বলে একই বাসায় জোড় পূর্বক সোনিয়া আক্তার কে আবারও ধর্ষন করে।



কিন্তুু সোনিয়া ঘটনাটি গোপন রেখে ধীরে ধীরে ভয়ভীতস্থ হয়ে জীবন যাপন করিলেও নিজের অজানতে ৬ মাসের অর্ন্তসত্ত্বা হয়ে যায়। নাবালক মেয়েটি দেহে নানান রোগ দেখা দিলে মেয়েটিকে পরিবারের পক্ষ থেকে শাররীক বিষয়ে জানতে চাইলে মেয়েটি ধর্ষণ হওয়ার ঘটনাটি খুলে বলে। অভিবাবক মেয়েটিকে চিকিৎসা জন্য ডাক্তারের কাছে নিয়ে গেলে ডাক্তার তার অর্ন্তাসত্ত্বা কথা অভিবাবক কে জানায়।

কিন্তু মেয়েটি নাবালিকা হওয়ায় রাষ্ট্রিয় আইন ও সামাজিক নিয়ম ভঙ্গ করে ধর্ষক রায়হানের হুমকি ধামকী উপেক্ষা করে নিরুপায় হয়ে সোনিয়ার মাতা আয়েশা বাদী হয়ে গত ২০ জুলাই হালিশহর থানা একটি মামলা রুজু করে। হালিশহর থানার পুলিশ উক্ত ঘটনায় জড়িত মোঃ রায়হান (২১) পিতা: মোঃ লোকমান কে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে গ্রেফতার করে।

শেয়ার করুন

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.

0 coment rios:

ধন্যবাদ আপনার সচেতন মন্তব্যের জন্য।