রবিবার, ৪ আগস্ট, ২০১৯

বাংলাদেশের প্রাথমিক বিদ্যালয় লাল সবুজে বদলে দেওয়ার একজন কারিগর


এফ এম শাহ রিপন,নোয়াখালী প্রতিনিধিঃ






"আমাদের বিদ্যালয়, আমরাই গড়ি"
 "এসো স্বপ্নের বিদ্যালয় গড়ি, নিজকে দিয়ে শুরু করি" 
কিংবা 
"আমাদের বিদ্যালয় যেন আনন্দের এক ফুল "






এই স্লোগানগুলো  নিয়ে শিক্ষার্থীদের মাঝে জাতীয় ঐক্যের বীজ বপন এবং মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ করার লক্ষ্যে বিদ্যালয়গুলো লাল সবুজে  সাজানোর প্রয়াস গ্রহণ করেন বর্তমান নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার সুযোগ্য ও সুদক্ষ সহকারী উপজেলা শিক্ষা অফিসার জনাব মোহাম্মদ আবদুল মোতালেব। 





২০১২-২০১৩ সালে দাগনভূঁঞা উপজেলায় লাল-সবুজের প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ধারণা সফলতা অর্জন করায় এটি বর্তমানে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলাসহ সারা বাংলাদেশে ছড়িয়ে পড়েছে।কোম্পানীগঞ্জ উপজেলায় ২০১৭ সাল থেকে যাত্রা শুরু করে এখানেও সিরাজপুর সঃপ্রাঃবিঃ, চরহাজারী এ মজিদ সঃপ্রাঃবিঃ,মাকসুদাহ মডেল, ফকিরের তাকিয়া সঃপ্রাঃবিঃ,পশ্চিম মোঃ নগর সঃপ্রাঃবিদ্যালয়সহ বেশ কয়েকটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে লাল-সবুজের রং এ সুসজ্জিত করার নেপথ্য কারিগর এই কর্মকর্তা।সম্প্রতি ন্যাপ ময়মনসিংহে অনুষ্ঠিত ফাউন্ডেশন প্রশিক্ষণে তিনি মেধাতালিকায় ১ম স্থান অধিকার করার গৌরব অর্জন করেন। 







অবিরাম তিনি ছুটে চলেছেন কোম্পানীগঞ্জ এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে।লক্ষ্য একটাই কিভাবে বিদ্যালয়ের ক্যাম্পাস শিশুদের জন্য একটি লাল-সবুজের ফুলের বাগান হিসেবে তৈরি করা যায়।ইতোমধ্যে তার হাত দিয়ে বেশ কয়েকজন শিক্ষক ও উপজেলা চেয়ারম্যান বিভাগীয় এবং জাতীয় পর্যায়ের শ্রেষ্ঠত্বের মুকুট অর্জন করেছেন।আমরা কোম্পানীগঞ্জ প্রাথমিক শিক্ষা পরিবার ধন্য স্যারের মত একজন মেধাবী,পরিশ্রমী ও সৎ কর্মকর্তা পেয়ে।

শেয়ার করুন

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.

0 coment rios:

ধন্যবাদ আপনার সচেতন মন্তব্যের জন্য।