শনিবার, ২৪ আগস্ট, ২০১৯

ধর্ষণে বাধা দিতে গিয়ে যুবক খুন, গণপিটুনিতে নিহত ঘাতক


শনিবার ভোরে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার আমিরপুর গ্রামে ছুরিকাঘাতে হাসান আলী (২৬) নামে এক যুবক নিহত এবং স্কুলছাত্রীসহ আরো দুইজন আহত হয়েছেন। পরে গ্রামবাসীর গণপিটুনিতে নিহত হয়েছেন দুর্বৃত্ত আকবর আলী (৩৫)। এ ঘটনা ঘটে।





ছুরিকাঘাতে নিহত হাসান আলী আমিরপুর গ্রামের হামিদুল ইসলামের ছেলে। অপরদিকে গণপিটুনিতে নিহত আকবর আলী দামুড়হুদা উপজেলার পারকৃষ্ণপুর মদনা গ্রামের মৃত আবুল হোসেনের ছেলে। 

পুলিশ জানায়, ভোরে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার আমিরপুর গ্রামের পঙ্গু হামিদুল ইসলামের বাড়িতে গিয়ে তার স্কুলপড়ুয়া নাতনিকে ধর্ষণের চেষ্টা করেন আকবর আলী। তখন ওই স্কুলছাত্রীর চিৎকার শুনে প্রতিরোধ করতে গেলে আকবর আলীর ছুরিকাঘাতে ঘটনাস্থলেই মারা যান হাসান আলী। 

গুরুতর আহত হন ওই স্কুলছাত্রীসহ তার নানা হামিদুল ইসলাম। পরে গ্রামবাসী আকবর আলীকে আটক করে গণপিটুনি দিলে ঘটনাস্থলেই তিনিও মারা যান।




খবর পেয়ে চুয়াডাঙ্গার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কানাই লাল সরকারসহ পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। গুরুতর আহতাবস্থায় হামিদুল ইসলাম ও তার স্কুলপড়ুয়া নাতনিকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

চুয়াডাঙ্গা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু জিহাদ ফকরুল আলম খান জানান, গণপিটুনিতে নিহত আকবর আলীর চরিত্র খারাপ ছিল। ওই স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের জন্যই মূলত সে ওই বাড়িতে হানা দেয়। স্থানীয় গ্রামবাসী এমনটিই তথ্য দিয়েছেন। প্রকৃত ঘটনা অনুসন্ধানে কাজ চলছে।


শেয়ার করুন

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.

0 coment rios:

ধন্যবাদ আপনার সচেতন মন্তব্যের জন্য।