বুধবার, ২৮ আগস্ট, ২০১৯

ছাত্রীকে দিয়ে শরীর মালিশ করালেন শিক্ষক বিতর্কের ঝড়, ছবি ভাইরাল


শিক্ষকের মাথা টিপে দিচ্ছে ছাত্রছাত্রীরা। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে সেই ছবি ভাইরাল হতেই বিতর্কের ঝড়। পানাগড় বাজার উচ্চ বিদ্যালয়ের বাংলার শিক্ষক সন্দীপ কুমার চট্টোপাধ্যায় ২০০১ সাল থেকেই এই বিদ্যালয়ে শিক্ষকতা করেন। ছাত্রছাত্রীদের সঙ্গে সম্পর্কও খুব ভারো বলে জানা গেছে।


ভারতীয় সংবাদমাধ্যম নিউজ১৮ এক প্রতিবেদনে জানায়, ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের দুর্গাপুরের পানাগড় বাজার উচ্চ বিদ্যালয়ে।সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে এই শিক্ষকের কয়েকটি ছবি ভাইরাল হয়েছে। যেখানে দেখা যায়, কখনো ছাত্র আবার কখনো ছাত্রীদের দিয়ে মাথা টেপাচ্ছেন তিনি। যদিও এর মধ্যে অন্যায় কিছু দেখছেন না ওই শিক্ষক।শিক্ষক জানিয়েছেন, এই বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও শিক্ষকদের সম্পর্ক খুবই ভালো। ছাত্রছাত্রীরাই ভালোবেসে মাঝেমধ্যেই শিক্ষকদের মাথায় হাত বুলিয়ে দেয়। গা মালিশ করে দেয়। 




কখনো কখনো পাকা চুলও তুলে দেয় তারা।এই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক অরুণ কুমার চক্রবর্তী জানিয়েছেন, ভাইরাল হওয়া ছবি যদি ঠিক হয় তবে তা ঠিক কাজ নয়। স্কুল কমিটির পরবর্তী সভায় বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করা হবে।আরও পড়ুন…বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন (ইউজিসি) কর্তৃক সমন্বিত খসড়া নীতিমালা প্রত্যাখ্যান করেছে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি) শিক্ষক সমিতি। বুধবার (২৮ আগস্ট) সকাল ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের অনুষদ ভবনে অনুষ্ঠিত সাধারণ সভায় এ সিদ্ধান্ত নেন সমিতির নেতারা।তাদের দাবি, ইউজিসি কর্তৃক বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকদের জন্য যে নীতিমালার প্রস্তাব করা হয়েছে তা পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়সমূহের স্বায়ত্তশাসন ধারণার পরিপন্থী।

শিক্ষক নিয়োগ, পদোন্নতি সক্রান্ত বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রচলিত যে নীতিমালা রয়েছে, সেটিই শিক্ষকদের জন্য গ্রহণযোগ্য নীতি।এ বিষয়ে ইবি শিক্ষক সমিতির শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. কামাল উদ্দিন বলেন, ‘নিয়োগ, পদোন্নতি সংক্রান্ত নীতিমালার প্রচলিত পদ্ধতিই শিক্ষকদের জন্য কার্যকরী। ইউজিসি কর্তৃক খসড়া নীতিমালায় পদোন্নতির যে সকল শর্ত প্রস্তাব করা হয়েছে সেগুলো বিশ্ববিদ্যালয়সমূহের প্রকিৃতি এবং শিক্ষা ও গবেষণার জন্য বিদ্যমান সুযোগ-সুবিধার সাথে সঙ্গতিপূর্ণ নয়।

শেয়ার করুন

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.

0 coment rios:

ধন্যবাদ আপনার সচেতন মন্তব্যের জন্য।