সোমবার, ২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

রাউজানের বৃদ্ধাশ্রমে ১০ টাকায় স্বপ্ন যাত্রা>> ‍SSTV Bangla



বৃদ্ধাশ্রম কথাটা আমরা ছোট থেকে নাটক বা সিনেমাতে শুনেই অভ্যস্ত হয়েছি; তবে বাস্তবে বৃদ্ধাশ্রমে গিয়ে, সেখানকার মানুষের সাথে কথা বলে হ্নদয় ছুঁয়ে যাওয়া যেসব তথ্য জানা যায়; তা কখনো নাটক কিংবা সিনেমায় দেখে সম্ভব নয়। সম্প্রতি চট্টগ্রামের রাউজান উপজেলার আমেনা বশর বয়স্ক পূর্নবাসন কেন্দ্রে গিয়েছিল আন্তর্জাতিক ইসলামি বিশ্ববিদ্যালয়ের কিছু মানবতাপ্রেমী শিক্ষার্থীদের সংগঠন ‘১০ টাকায় সপ্ন যাত্রা’ সংগঠনের প্রতিনিধি পিংকি আক্তার সন্দেশ২৪.কমকে জানায়।





আমাদের বৃদ্ধাশ্রমে যাওয়ার মূল উদ্দেশ্য ছিলো সেখানকার মানুষগুলোর সাথে কিছু সময় কাটানো এবং কিছু প্রয়োজনীয় জিনিস তাদের হাতে তুলে দেওয়া; আমরা তাদের প্রত্যেকের জন্য অন্তত এক বছরের জন্য ঔষধ বিতরণ করেছি; সাথে নিত্য প্রয়োজনীয় কিছু জিনিসও তাদের উপহার হিসাবে দিয়েছি; আমরা তাদের সাথে বসে সকালে নাস্তা ও মধ্যাহ্নভোজ সেরেছি; বিকালে তাদের মধ্যে নানারকম খেলাধুলা ও কুইজের আয়োজন করেছি এবং বিজয়ীদের পুরষ্কার দিয়েছি এভাবে তাদের মাঝে আনন্দ ছড়িয়ে দিতে চেষ্টা করেছি।





আমেনা বশর বয়স্ক পূর্নবাসন কেন্দ্রে নারী-পুরুষ মিলিয়ে ২৫ জন ছিলেন।এখানে অনেকে ৫ বছর ধরে রয়েছেন আবার অনেকে নতুন।তাদের সাথে কথা বলে জানা যায়, অধিকাংশই অনেক ভালো পরিবার থেকে এসেছেন; কারো ছেলে মেয়ে রাষ্ট্রের বড় দায়িত্বে রয়েছেন, কারো মেয়ে শান্তি মিশনে রয়েছে, আবার কারও কেউই নেই। ভাগ্যের নির্মম পরিহাসে তারা আজ এই বয়স্ক পূর্নবাসন কেন্দ্রে রয়েছে।





সংগঠনের কর্মীরা মনে করেন, তাদের
সচেতনামূলক কার্যক্রমে দেশে পিতা-মাতাকে বৃদ্ধাশ্রমে পাঠানোর প্রবণতা কমবে।মানুষ নিজ পিতামাতাকে আরো বেশি ভালোবাসতে ও তাদের প্রতি দায়িত্বশীল হতে শিখবে।তাদের প্রত্যাশা মানবতার দূত হয়ে ছড়িয়ে পড়বে সর্বত্র ১০ টাকায় স্বপ্ন যাত্রা সংগঠন।

শেয়ার করুন

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.

0 coment rios:

ধন্যবাদ আপনার সচেতন মন্তব্যের জন্য।