সোমবার, ২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

টেকনাফে সড়ক দুর্ঘটনায় শিশু ও চালকসহ ৫ জন নিহত>> SSTV Bangla


টেকনাফ-কক্সবাজার সড়কে যাত্রীবাহী সিএনজি এবং বিজিবির পিকআপ ভ্যানের মধ্যে মুখোমুখী সংঘর্ষে রোহিঙ্গা সহোদর নিহত হয়েছে। এতে আরো ৫জন আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।





জানা যায়, ২ সেপ্টেম্বর দুপুর ১২টারদিকে রামু হতে টেকনাফগামী একটি বিজিবির পিকআপ ভ্যান এবং নয়াপাড়া শালবাগান ক্যাম্প হতে বালুখালী শরণার্থী ক্যাম্পে বিয়ে অনুষ্ঠানে গমনকারী সিএনজি (কক্সবাজার-থ-১১-১৮৭৫) হোয়াইক্যং চেকপোস্টের উত্তর পার্শ্বে পৌঁছলে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মুখোমুখী সংঘর্ষ হয়। এসময় সিএনজিতে থাকা শালবাগান রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ১১নং ব্লকের বাসিন্দা মোহাম্মদ আইয়ুব (১৭) ও মোহাম্মদ নুর (২৫) রক্তাক্ত এবং অজ্ঞানসহ গাড়ির সবযাত্রী আহত হয়। তবে পিকআপ ভ্যানে থাকা বিজিবি জওয়ানেরা অক্ষত থাকলেও যানবাহন কিছুটা ক্ষতিগ্রস্থ হয়।





চেকপোস্টে দায়িত্বরত বিজিবি ও উপস্থিত জনসাধারণ আহতদের দ্রæত উদ্ধার করে চাকমারকূল রোহিঙ্গা ক্যাম্পের সেভ দ্যা চিলড্রেন হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নেওয়া হয়। তখন কর্তব্যরত ডাক্তার আইয়ুব ও মোঃ নুরকে সহোদরকে মৃত ঘোষণা করেন। নিহতদের পিতার নাম পাওয়া যায়নি। এছাড়া গাড়িতে থাকা আহত আমির হামজা, আবুল হোছাইন, দিলদার বেগম, শিশু মোঃ জুবাইর ও সিএনজি চালক লম্বাবিলের কবির আহমদের পুত্র শামশুল আলম (২৮) কে চিকিৎসা দিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার রেফার করা হয়েছে।

এদিকে নিহতরা যে ঠিকানা দিয়েছে তা পাওয়া যায়নি। অপর একটি সুত্রের দাবী নিহতরা জামতলী ক্যাম্প এলাকার হতে পারে।





নয়াপাড়া হাইওয়ে পুলিশের এসআই শরীফ হাসান বলেন, এই দূঘর্টনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গেলে ভিকটিম কাউকে পাওয়া যায়নি। তবে এই ঘটনায় ২জন মারা গেছে বলে লোক মারফতে অবগত হয়েছি। সড়ক দূঘর্টনায় ক্ষতিগ্রস্থ সিএনজিটি আমাদের হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। এই ব্যাপারে তদন্ত স্বাপেক্ষে পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে। 

শেয়ার করুন

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.

0 coment rios:

ধন্যবাদ আপনার সচেতন মন্তব্যের জন্য।