সোমবার, ৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

তেল পাচারের অভিযোগে আরো একটি বিদেশী জাহাজ আটক করল ইরান>> SSTV


শনিবার তেল পাচারের অভিযোগে ফিলিপাইনের ১২ জন নাবিকসহ একটি জাহাজ আটক করেছে ইরানের কোস্টগার্ড। জাহাজে জ্বালানি পাচার হয়ে উপসাগরীয় কোনো দেশে যাচ্ছিল বলে ধারণা করা হচ্ছে।




রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়, ইরান থেকে দুই লাখ ৮৪ হাজার লিটার ডিজেল পাচারের সময় উপসাগরীয় অঞ্চল থেকে ওই জাহাজটি আটক করা হয়। আটক ব্যক্তিরা সবাই ফিলিপাইনের নাগরিক। 

যুক্তরাষ্ট্রের অবরোধের মধ্যেই তেহরান তার শক্তি বৃদ্ধির জন্য পেট্রল রফতানি করছে। বিপুল পরিমাণ রাষ্ট্রীয় ভর্তুকি ও দেশীয় মুদ্রার দরপতনের ফলে ইরান থেকে খুবই সস্তায় জ্বালানি সংগ্রহ করে বিভিন্ন দেশ। 




ইরান থেকে প্রতিদিন আনুমানিক এক কোটি লিটার জ্বালানি চোরাচালান করা হয় দেশটির সংবাদমাধ্যমগুলো জানিয়েছে।

এর আগে ইরানের সাথে যুক্তরাষ্ট্রের উত্তেজনা চলার মধ্যে জুলাইতে উপসাগরীয় এলাকা থেকে ব্রিটিশ পতাকাবাহী ট্যাংকার স্টেনা ইম্পারো আটক করে ইরান। ওই সময়ে আন্তর্জাতিকভাবে গুরুত্বপূর্ণ এই জাহাজ পরিবহন রুটে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। 




প্রাথমিকভাবে তেহরানের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়, ইরানের একটি মাছ ধরার নৌকার সাথে ধাক্কা লাগার পর ব্রিটিশ ট্যাংকারটি আটক করা হয়। পরে ব্রিটিশ প্রতিরক্ষামন্ত্রী জানান, আটকের সময় তাদের জাহাজটি ওমানের সমুদ্রসীমায় ছিল।


শেয়ার করুন

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.

0 coment rios:

ধন্যবাদ আপনার সচেতন মন্তব্যের জন্য।