বৃহস্পতিবার, ২৪ অক্টোবর, ২০১৯

বৃটেনে লরির ভেতর মিললো ৩৯ মৃতদেহ


বৃটেনে এক লরির ভেতর থেকে ৩৯টি মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মৃতদের পরিচয় নিশ্চিত হওয়া যায়নি। পুলিশ জানিয়েছে, তাদের প্রায় সবাই প্রাপ্তবয়স্ক। তবে এক টিনেজারের মৃতদেহও রয়েছে। ইংল্যান্ডের এসেক্স কাউন্টিতে লরিটি আটক করা হয়। এ ঘটনায় একটি হত্যা তদন্ত শুরু করেছে গোয়েন্দারা। লরিটির ২৫ বছর বয়সী চালককে, হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তিনি নর্দার্ন আয়ারল্যান্ডের বাসিন্দা। এ খবর দিয়েছে  বিবিসি, দ্য টাইমস ও দ্য গার্ডিয়ান।

খবরে বলা হয়, মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১টা ৪০ মিনিটের দিকে এসেক্সের ওয়াটারগ্লেড ইন্ডাস্ট্রিয়াল পার্কে লরিটি আবিষ্কার করে স্থানীয় একটি এম্বুলেন্স পরিচালনাকারী দল। তারাই পুলিশকে লরিটি সমপর্কে জানায়। পুলিশের ধারণা লরিটি বুলগেরিয়ার। বুলগেরিয়া থেকে শনিবার ওয়েলসের হোলিহেড দিয়ে বৃটেনে প্রবেশ করেছে যানটি।

স্থানীয় সময় বুধবার সকালে এসেক্স পুলিশ বিভাগের ডেপুটি প্রধান কনস্টেবল পিপা মিল্‌স জানান, এখনো মৃতদের কারো পরিচয় শনাক্ত করা যায়নি। লরিটি কীভাবে এসেক্সে পৌঁছেছে সে বিষয় খতিয়ে দেখছে তারা। নর্দার্ন আয়ারল্যান্ডের পুলিশ বাহিনী জানিয়েছে, তারাও এ ঘটনায় একটি তদন্ত চালু করেছে। এছাড়া, এ ঘটনায় বৃটিশ সরকারের সঙ্গে যোগাযোগ করেছে বুলগেরিয়া সরকার।




এদিকে, লরিতে মৃতদেহ পাওয়ার ঘটনায় শোক প্রকাশ করেছেন বৃটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। তিনি এক টুইটে শোক প্রকাশ করে জানান, তিনি এই ঘটনার খোঁজ রাখছেন ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এই ঘটনায় এসেক্স পুলিশ বিভাগের সঙ্গে কাজ করবে।

এসেক্সের প্রধান পুলিশ সুপার অ্যান্ড্রিও মারিনার বলেন, এই মর্মান্তিক ঘটনায় অনেকে প্রাণ হারিয়েছেন। এর রহস্য উদ্‌ঘাটনে তদন্ত চলছে। আপাতত মৃতদের পরিচয় শনাক্ত করার চেষ্টা চলছে। তবে এতে অনেক সময় লাগবে বলে ধারণা করছে পুলিশ বিভাগ। উদ্বিগ্ন স্বজনদের জন্য একটি হটলাইন চালু করেছে এসেক্স পুলিশ বিভাগ।




বৃটেনে লরির ভেতর মৃতদেহ পাওয়ার ঘটনা নতুন নয়। ২০০০ খ্রিষ্টাব্দে ইংল্যান্ডের ডোভার শহরে এক লরিতে ৫৮ জনের মৃত্যু হয়েছিল। ওই লরিটি বেলজিয়াম থেকে বৃটেনে নিয়ে গিয়েছিল এক ডাচ্‌ ব্যক্তি। তিনি লরিটির ভেতর বাতাস চলাচলের পথ বন্ধ করে দিলে এর ভেতরকার ৫৮ অভিবাসী শ্বাসরুদ্ধ হয়ে মারা যায়। নরহত্যার অভিযোগে ওই ডাচ্‌ চালককে ১৪ বছর কারাদণ্ড দেয়া হয়। এছাড়া, গত বছর অস্ট্রিয়ায় এক লরিতে ৭১ জন অভিবাসীর মৃতদেহ পাওয়া যায়।

শেয়ার করুন

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.

0 coment rios:

ধন্যবাদ আপনার সচেতন মন্তব্যের জন্য।