রবিবার, ৯ ফেব্রুয়ারী, ২০২০

পুলিশ সুপার টানা ২য় বারের মত “বিপিএমবার” পদক পাওয়ায় উখিয়ায় গণ সংবর্ধণা


পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসেন বলেছেন, চোরের দশ দিন গৃহস্থের এক দিন। যেদিন ধরা পড়বে সে দিন আর বেঁচে থাকার সুযোগ থাকবে না।
তিনি বলেন, সমাজে যারা ইয়াবা কারবারি তাদের চেয়ার দিবেন না। সমাজে তারা যেন নেতৃত্ব দিতে না পারে সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।
কক্সবাজার জেলা পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসেন (বিপিএমবার) টানা ২য় বারের মত “বিপিএম”প্রাপ্তি এবং অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইকবাল হোসেন “আইজিপি” ব্যাচ প্রাপ্তি উপলক্ষ্যে অনুষ্ঠিত গণসংবর্ধনায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসপি মাসুদ এসব কথা বলেন।
গত শনিবার ৮ ফেব্রুয়ারী বিকাল ৩টায় পালং গার্ডেনে অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন উখিয়া উপজেলা কমিউনিটি পুলিশের সভাপতি নুরুল হুদা।
সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ২য় বারের মত আইজিপি ব্যাজ প্রাপ্ত অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ ইকবাল হোসেন।
তিনি বলেন, রোহিঙ্গাদের চিত্র চোখে পড়লে মন খারাপ হয়ে যায়।
রোহিঙ্গারা যেভাবে আছে সেভাবে আরো কিছুদিন থাকলে স্থানীয়দের দৃশ্যমান কষ্ট ভোগ করতে হবে।
তিনি অভিভাবক মহলকে ধন্যবাদ দিয়ে বলেন, ১১ লক্ষ রোহিঙ্গাকে আশ্রয় দিয়ে স্থানীয় ও রোহিঙ্গারা এখনোসহ অবস্থানে বাস করছেন।
সভায় বক্তব্য রাখেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (উখিয়া সার্কেল) নিহাদ আদনান তাইয়ান, উখিয়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ হামিদুল হক চৌধুরী, জেলা কমিনিউটি পুলিশিং ফোরামের সভাপতি সাংবাদিক তোফাইল আহামদ, ও সাধারণ সম্পাদক সোহেল আহমদ বাদুর, উখিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ আবুল মনসুর, রত্নাপালং ইউনিয়নের চেয়ারম্যান খাইরুল আলম চৌধুরী, উখিয়া উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ইমাম হোসেন, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মকবুল হোসেন মিথুন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি আদিল উদ্দিন চৌধুরী, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান কামরুন নাহার বেবী ও হলদিয়াপালং ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আমিনুল হক আমিন।

শেয়ার করুন

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.