বৃহস্পতিবার, ১৬ এপ্রিল, ২০২০

আমাদের ডাঃ মঈন উদ্দিন আছে তো..



আবুল ফজলঃ-
ডাঃ মঈন উদ্দিন সহকারী অধ্যাপক ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ সিলেট।

সব সম্ভবের দেশ বাংলাদেশঃ
এ বাংলায় হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালী,স্বাধীনতার মহান স্থপতি ও বাঙালী জাতির স্বপ্নপুরুষ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের যেমন জন্ম হয় ঠিক তেমনি ভাবে তাঁহাকে স্ব পরিবারে হত্যাকারী খন্দকার মোশতাক গংয়ের ও জন্ম হয়।

এখানে শীতের হিমেল হাওয়ার যেমন শরৎ আসে তেমনি কালবৈশাখীর ফনা তুলে গ্রীষ্ম ও আসে।তারই ধারাবাহিকতায় যুগে যুগে এদেশে ইতিবাচক যে কোন ঘটনা প্রবাহের বিরুদ্ধে জয়বাংলা,জিন্দাবাদ,মুর্দাবাদের মতো শ্লোগান গাওয়া কিছু সুশীল,আঁতেল,সাংবাদিক সহ বিভিন্ন পেশাজীবির জন্ম হয়,হওয়ার কথা কারণ এটা বাংলাদেশ।

সারাবিশ্বের মতো চলমান করোনা পরিস্থিতির ভয়াল গ্রাসথেকে উত্তরণের জন্য গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সাধ্যমতো চেষ্টার ভূমিকার সাথে সামঞ্জস্যতা  ও দুঃসাহসিক মানবতায় করোনায় আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা সেবা প্রদান করতে গিয়ে ইতিমধ্যে বাংলাদেশের অপার সম্ভাবনাময় মহান ডাক্তার মঈন উদ্দিন মৃত্যুবরন করেছেন,অন্যান্যদের মতো লকডাউনের অজুহাতে তিনিও নিজ পরিবার পরিজন নিয়ে নিরাপদে  থাকতে পারতেন!অনেক ডাক্তার লকডাউনে আছেনও বটে।

ছাত্র জীবনে ডাঃমঈন উদ্দিন কিসের রাজনীতি করতো বাংলাদেশের মানুষ জানতো না,জানার দরকারও নাই।কঠিন করোনা পরিস্থিতিতে সীমিত সাধ্যের বাংলাদেশের মানুষ জেনেছে ডাঃমঈনের মানবতার বিরল প্যাকেটে মোড়ানো আত্নত্যাগের করুণ ইতিকথা।কিন্তু করোনা পরিস্থিতির কঠিন সংগ্রামে তাঁর মৃত্যুর পর এক শ্রেনীর বুদ্ধিজীবী বা সাংবাদিক ডাঃ মঈনের কফিন শিবিরের ষ্টাম্প দ্বারা চিহ্নিত করার হীনমন্যতা শুরু করেছিল,কিন্তু না এদেশে অন্যান্যদের মতো মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা'র জন্মও হয়েছে,তিনি সযত্নে ডাক্তার মঈনের আত্নত্যাগকে মানবতার চাদরে আলিঙ্গন করেছেন।এবার তাঁর আত্না অন্তত জানবে বাংলা মায়ের প্রতিটি ঘরেঘরে ডাঃমঈন উদ্দিনের জন্ম হবে।
সবাই আঙুল উঁচিয়ে বলবে আমাদের ডাঃ মঈন উদ্দিন  আছে তো!

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ইস্পাত কঠিন মানসিকতায় আওয়ামী ঘরনায় লালিত ত্রাণের চাল চোর চেয়ারম্যান মেম্বার ,জিকে শামীম,পাপিয়াদের যেমন জেলের অন্ধকার প্রকোষ্ঠে নিক্ষেপ করেছে,তেমনিভাবে স্বীয় মানবীয় বৈশিষ্ট্যের গুনে শহীদ ডাঃমঈন উদ্দিনের আত্নত্যাগের স্বীকৃতি প্রদান সহ পরিবারের দায়িত্বভারও গ্রহণ করেন।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর মতো আমরা কি পারি না দুষ্টের দমন শিষ্টের পালনে অভ্যস্ত হতে?

কৃতজ্ঞচিত্তে ধন্যবাদ
সাবাস মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা।

আসুন আমরা নিজেই নিজের নিরাপত্তা নিশ্চিত করি এবং জনকল্যাণকর কাজের স্বীকৃতি প্রদানে কৃপনতাসহ অপরাজনীতি পরিহার করি।

ডাক্তার মঈন সহ করোনা ভাইরাসে মৃত্যুবরণ করা সকলের আত্মার মাগফেরাত কামনা করছি।
আল্লাহপাক রাব্বুল আলামীন সকলের পরিবারকে সবরে জমিল দান করুন,আ-মীন।


...


শেয়ার করুন

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.