সোমবার, ২০ এপ্রিল, ২০২০

ইংল্যান্ডের আকাশে হঠাৎ আগুনের ফুলকি!



ইংল্যান্ডের আকাশে হঠাৎ উদয় হয়েছে অদ্ভূত আগুনের ফুলকি! গবেষক থেকে বিশেষজ্ঞ মহলের কেউই বুঝে উঠতে পারছেন না। কী এই বস্তু! প্লেন, নাকি সুপারম্যান, নাকি অন্য কোনও সন্দেহজনক বস্তু? রানীর দেশে এখন করোনার পর এই নিয়েই চিন্তার ভাঁজ।

কেম্ব্রিজশায়ারের মানুষজনও প্রথমে কিছুটা চমকে গিয়েছিলেন। কী এই বস্তু? অলীক এই বস্তুর পিছনের দিকে আবার ধোঁয়ার একটি লেজও রয়েছে।

সংবাদমাধ্যম ডেইলি মেইলের রিপোর্ট অনুযায়ী, বস্তুটি সর্ব প্রথম লক্ষ্য করেন গেরি আন্ডারউড নামের এক ব্যক্তি। আকাশে তারা খসাও দেখেছেন গেরি। কিন্তু এমন অদ্ভুত লালচে আভা এর আগে কখন তিনি চাক্ষুষ করেননি। তাই দেখা মাত্রই তাজ্জব বনে যান। তার আরও অনুসন্ধান যে, ওই লালচে আভা যেন মনে হচ্ছিল ঘুরছে।
তবে বেশ কিছুক্ষণ আকাশে ভেসে থাকার পরই গেরির চোখের সামনে থেকে উধাও হয়ে যায় রহস্যজনক এই বস্তুটি। তবে গেরি বললেন, উল্কাও খুব তাড়াতাড়িই প্রায় সেকেন্ডের মধ্যেই বিলীন হয়ে যায়। কিন্তু কী এমন এই রহস্যজনক বস্তু, যা ১০-২০ মিনিট লাগাতার আকাশে ভেসে থাকার পর হারিয়ে গেল!


তবে ছবি দেখে যা বোঝা যাচ্ছে তা হলো বস্তুটি আকারে বেশ বড়ই। যদিও এখনও অবধি কোনওভাবেই জানা যাচ্ছে না যে, বস্তুটি আদতে ঠিক কী?

সংবাদমাধ্যম দ্যা এক্সপ্রেস ইউকে রিপোর্টে উল্লেখ করছে, “ন্যাশনাল স্পেস একাডেমি এখন একটি সম্ভাব্য তত্ত্বের প্রস্তাব দিয়েছে। যেখানে বলা হচ্ছে যে এই পুচ্ছ বস্তুটি একটি উচ্চ উচ্চতার জেটের নিচের দিকের অংশ।”

তবে বিশেষজ্ঞদের একাংশ মনে করছেন যে, যে কমলা রঙের শিখা দেখা যাচ্ছে তা সূর্যরশ্মির প্রতিফলনও হতে পারে। পাশাপাশিই তাদের আরও বক্তব্য, সূর্যাস্তের সময়ই দেখা মিলতে পারে এই অদ্ভূত বস্তুর। আর ওই গতি হাওয়ার গতির কারণে হতে পারে বলে বিশেষজ্ঞ মহলের ধারণা।

শেয়ার করুন

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.