শনিবার, ১৬ মে, ২০২০

করোনায় দশম সপ্তাহে দৈনিক গড়ে আক্রান্ত ১ হাজার ৪৬, মৃত্যু ১২





৮ মার্চ বাংলাদেশে প্রথম প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। দেশে প্রথম শনাক্তের দিন হিসেবে শনিবার (১৬ মে) পর্যন্ত দশম সপ্তাহ শেষ হলো।

দশম সপ্তাহে রাজধানীসহ সারাদেশে সর্বমোট সাত হাজার ৩২৫ জন নতুন রোগী শনাক্ত হয়। একই সময়ে মৃত্যু হয় সর্বমোট ৮৬ জনের। শতাংশের হিসাবে দৈনিক গড়ে এক হাজার ৪৬ জন আক্রান্ত ও ১২ জনের মৃত্যু হয়।

শুরুর দিকে করানোয় আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা খুবই সীমিত থাকলেও চলতি দশম সপ্তাহে গত ১৫ মে একদিনে সর্বোচ্চ সংখ্যক এক হাজার ২০২ জন আক্রান্ত হন। এছাড়া গত ১৩ মে একদিনে সর্বোচ্চ ১৯ জনের মৃত্যু হয়।

পরিসংখ্যানে দেখা যায়, গত ১০-১৬ মে পর্যন্ত যথাক্রমে আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ৮৮৭ জন, এক হাজার ১৩৪ জন, ৯৬৯ জন, এক হাজার ১৬২ জন, এক হাজার ৪১ জন, এক হাজার ২০২ জন এবং ৯৩০ জন। একই সময়ে মৃত্যু হয় যথাক্রমে ১১ জন, ১১ জন, ১৯ জন, ১৪ জন, ১৫ জন ও ১৬ জন।

সবার মুখে একটাই প্রশ্ন সামনের দিনগুলোতে কী হবে। স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা বলছেন, স্বাস্থ্যবিধি সঠিকভাবে মেনে না চললে সামনের দিনগুলোতে সংক্রমণের ঝুঁকি বাড়বে। তারা অপ্রয়োজনে ঘরের বাইরে বের না হতে, জরুরি প্রয়োজনে ঘরের বাইরে বের হতে হলে ব্যক্তিগত সুরক্ষা সামগ্রী মাস্ক ও গ্লাভস ব্যবহার এবং সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে চলাচলের পরামর্শ দেন।

শেয়ার করুন

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.