সোমবার, ২২ জুন, ২০২০

(ডাক্তার)কসাই আর (উকিল)মিথ্যাবাদীদের গল্প লেখক :- শফিক উল্লাহ








যারাই আপনার চোখে  কসাই আর মিথ্যাবাদী তারাই দিনশেষে আপনার জীবনকে নতুন করে করে দেয়। যাদেরকে আপনি কসাই আর মিথ্যাবাদী বলে গালি দেন তারাই কিন্তু আপনার জীবনে সমস্যাগুলো সমাধান করে দাও।

ডাক্তার আর উকিল এই দুইটা মানুষদের প্রফেশন নিয়ে আজ আলোচনা করব:
আসলে আমরা বাস্তব জীবনে যা কিছু খারাপ মনে হয় তার মধ্যে অনেক কিছু খারাপের মাঝে ভালোটাই লুকিয়ে থাকে। আমাদের উকিল আর ডাক্তারদের খারাপ টাই চোখে পড়লেও বাস্তবিক বিষয়টা আমরা একটু চিন্তা করে দেখি না।

 আপনারা কি কখনো ভেবে দেখেছেন,! আপনি যাদেরকে খারাপ এবং মিথ্যাবাদী ,কসাই বলে ডাকতেছেন দিনশেষে তারাই আপনাকে বাছাই। দিনশেষে কিন্তু তাদের কাছে গিয়ে আপনি হাত পাতেন.! আর কাঁদতে কাঁদতে বলেন আমাকে বাঁচান /আমার ছেলের জীবন বাঁচান /আমার মায়ের জীবন বাঁচান/ আমার ছেলের কোন দোষ না /আমার রাগের বশে আমি করে ফেলেছি/স্যার আমাকে বাঁচান/স্যার কিছু একটা করেন। এই খারাপ মানুষ গুলোই  আপনাকে সাহায্য করে।আমি আবার পৃথিবীর অন্যান্য প্রফেশন কে ছোট করে দেখছি না। কিন্তু এই দুইটা প্রফেশন সম্পূর্ণ আলাদা। তাই আমি এই দুইটা প্রফেশন কে একটু অন্যভাবে দেখছি।

আরেকটু চিন্তা করে দেখেন.!.
পৃথিবীতে একমাত্র এই দুইটাই প্রফেশনের মানুষের কাছে গিয়ে কখনো মিথ্যা বলা যায় না। হয়তো আপনার বুঝতে কষ্ট হচ্ছে,!
আমি বুঝিয়ে দিচ্ছি...
আপনি আপনার একটা প্রবলেম নিয়ে ডাক্তারের কাছে গেলেন, আপনার কেমন লাগতেছে ? আপনি কি ফিল করতেছেন? আপনার কোথায় ব্যথা হচ্ছে, সবকিছু কিন্তু সত্যি সত্যি খুলে বলতে হবে, না হলে আপনাকে সঠিক চিকিৎসা করতে পারবে না।
ধরেন আপনি একটা উকিলের কাছে গেলেন একটা অপরাধ করে, আপনার সত্য টাই বলতে হবে  আপনি কিন্তু মিথ্যা বলতে পারবেন না, যদিও আপনি মিথ্যা বলেন তাহলে আপনার সমস্যা সমাধান করা যাবে না। আপনি আপনার অপরাধ টা সত্যি টা খুলে বললেই সমস্যা সমাধান করতে পারবে।
এখন বলেন আপনি এই দুইটা প্রফেশন ছাড়া ,পৃথিবীতে এমন কোন প্রফেশন আছে যেখানে গেলে আপনি সত্যিটা সত্য ছাড়া মিথ্যা বলতে পারবেন না । বলা যায় , মিথ্যা বলার কোন সুযোগ নাই। কারণ সত্যি তাই আপনাকে বাঁচাতে সাহায্য করবে।
আচ্ছা , যদি আমি বলি এই প্রফেশন দুইটা কেন গুরুত্বপূর্ণ ?
একটা মানুষ তার জীবন্ত কালে সে বলতে পারবে না আমি ডাক্তারের কাছে যাব না, কারণ সে নিজেও জানেনা কখন শারীরিকভাবে অসুস্থ হয়ে পড়ে।একটা কথা মনে রাখতে হবে, আপনার সুস্থতা কিন্তু দীর্ঘস্থায়ী নয়, আপনি যে কোন মুহূর্তে অসুস্থ হতে পারেন।
উকিল সাহেবের কথা কি বলব,!. আপনি আইনের জালে কখন যে বন্দি হয়ে যান আপনি নিজেও জানেনা।  কখন যে রাগের মাথায় অপরাধ করে বসে থাকবেন সেটা আপনার জ্ঞানের বাইরে।সত্যি কথা বলতে কি "মাথা থাকলে ব্যথা থাকবে" আর এই ব্যাথায় আপনাকে আইনের জালে বন্দী করে ফেলবে। আর আপনার মতে, মিথ্যাবাদী উকিলে ই আপনাকে বাঁচাবে।
তাই আমার মতে পৃথিবীতে হাজারো প্রফেশনের মাঝে এই দুইটা প্রফেশন অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ।

আমি আবার অন্যান্য প্রফেশন কে ছোট বা তাচ্ছিল্য করতেছি না । হ্যাঁ প্রত্যেকটি প্রফেশনে গুরুত্বপূর্ণ,
"টিচার" প্রফেশন তা না থাকলে হয়তো আমরা শিক্ষিত হতে পারতাম না। "ইঞ্জিনিয়া"র না থাকলে হয়তো আমরা ঘরবাড়ি তৈরি করতে পারতাম না। ব্যাংকার না থাকলে হয়তো আমরা ব্যাংকে টাকা জমাতে পারতাম না। "সাংবাদিক" এই প্রফেশনটা না থাকলে হয়তো আমরা বুঝতে পারতাম না দেশের সার্বিক পরিস্থিতি। ইত্যাদি ইত্যাদি,

কিন্তু আপনি একটু চিন্তা করে দেখুন.!. যারা অশিক্ষিত পড়ালেখা করে নাই, যাদের কোন টাকা-পয়সা নাই, গরিব মানুষ, ঘরবাড়ি নেই "তারা সবকিছু থেকে  বাইরে।
তাদের কিন্তু ইঞ্জিনিয়ার, সাংবাদিক , টিচার কোন কিছুই তাদের প্রয়োজন হয়না, পৃথিবীতে যতগুলো প্রফেশন আছে সবকিছুই বাইরে, তাদের কারো প্রয়োজন পড়ে না"

আপনি একটু ভেবে দেখুন-সবকিছুর বাহিরে থাকলেও এই দুইটা প্রফেশনের বাইরে কিন্তু ওরা নয়:-যতই গরীব হোক ওদের কিন্তু অসুখ হয় চিকিৎসার প্রয়োজন হয়"ডাক্তার তাদের প্রয়োজন পড়ে"তারা আইনের বাইরে নয়"তাদের কিন্তু আইনের আওতায় আসতে হয়।
 তাইআমি বলতে পারি পৃথিবীর অন্যান্য প্রফেশন এর মধ্যে এই দুইটা প্রফেশন অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ এবং প্রত্যেকটা মানুষের গ্রহণযোগ্য প্রফেশন।

শফিক উল্লাহ
আইন অফিসার
মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়

শেয়ার করুন

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.