রবিবার, ১৭ অক্টোবর, ২০২১

দেশের ওয়াশ খাতের পঞ্চাশ বছরের অর্জন উদযাপন

 নিউজ ডেস্ক ::






বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী এবং বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে পানি সরবরাহ, স্যানিটেশন ও হাইজিন (ওয়াশ) খাতের পঞ্চাশ বছরের অর্জন উদযাপনে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে।


অনুষ্ঠানে ওয়াশ খাতে বাংলাদেশের অর্জিত মাইলফলকসমূহ ও এসডিজি-৬ লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে অগ্রগতি ত্বরান্বিত করার বিষয়ে আলোকপাত করা হয়।


রাজধানীর প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও হোটেল স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয় এবং ওয়াটারএইড যৌথভাবে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।


অনুষ্ঠানে নিরাপদ পানি, স্যানিটেশন ও হাইজিন (ওয়াশ) সেক্টরের পঞ্চাশ বছরের অর্জন ও করনীয় শীর্ষক মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ওয়াটারএইড-এর দক্ষিন এশীয় অঞ্চলিক পরচিালক মো. খায়রুল ইসলাম।


অনুষ্ঠানে বক্তারা নিরাপদ পানি, স্যানিটেশন এবং হাইজিন (ওয়াশ) খাতে বাংলাদেশ গত পঞ্চাশ বছরে সাফল্য অর্জন করেছে বলে মত প্রকাশ করেন। সকলের জন্য মৌলিক পানীয় জল সরবরাহ সেবা নিশ্চিতকরণের পাশাপাশি উন্মুক্ত স্থানে মলত্যাগের হার প্রায় শূন্যে নামিয়ে আনার ক্ষেত্রে বাংলাদেশ ব্যাপক সফলতা অর্জন করেছে।


টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট-৬, ‘সকলের জন্য নিরাপদ পানি ও স্যানিটেশন ব্যবস্থা নিশ্চিতকরণ অর্জনে বাংলাদেশ সরকার দৃঢ় প্রতিজ্ঞ। ওয়াশ খাতের চ্যালেঞ্জসমূহ চিহ্নিত, মোকাবিলা ও নির্মূলের লক্ষ্যে দেশটি ধারাবাহিকভাবে কাজ করছে। ফলে, ২০৩০ সালের মধ্যে এসডিজি-৬ লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করা সম্ভব হবে বলে অনুষ্ঠানে বক্তারা আশাবাদ ব্যক্ত করেন।


এই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী জনাব মোঃ তাজুল ইসলাম, এমপি এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস ও ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ।


প্যানেল আলোচনায় উপস্থিত ছিলেন জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের (ডিপিএইচই) প্রধান প্রকৌশলী মো. সাইফুর রহমান, ঢাকা পানি সরবরাহ ও পয়:নিষ্কাশন কর্তৃপক্ষ (ডিওয়াসা) এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌশলী তাকসিম এ. খান এবং অধ্যাপক ড. এম. ফিরোজ আহমেদ।


অনুষ্ঠানে ওয়াটারএইড বাংলাদেশের কান্ট্রি ডিরেক্টর হাসিন জাহান সকলকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।


অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিভিন্ন সরকারি কর্মকর্তা এবং ওয়াশ সেক্টরের প্রতিনিধিগণ।


শেয়ার করুন

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.

0 coment rios:

ধন্যবাদ আপনার সচেতন মন্তব্যের জন্য।