রবিবার, ১৭ অক্টোবর, ২০২১

উখিয়ায় চেয়ারম্যান পদে ৩৬জন, মহিলা সদস্য পদে ৫৭, সাধারণ সদস্য পদে ২৯৯জনের মনোনয়ন দাখিল

নিউজ ডেস্ক ::




      


সারাদেশের ন্যায় ২ ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন

আগামী ১১নভেম্বর অনুষ্ঠিত হবে। সেই উপলক্ষ্যে মনোনয় পত্র দাখিলের শেষ দিন রোববার উখিয়ায় ৫ ইউনিয়নে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী ৫জন, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ হাতপাখা প্রতীকের প্রার্থী ৫জন ছাড়াও স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন ২৬জন চেয়ারম্যান প্রার্থী। সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে ৫৭জন এবং সাধারণ সদস্য পদে ২৯৯ জন মনোনয়ন দাখিল করেছেন বলে জানিয়েছেন উপজেলা নির্বাচন অফিসার ইরফান উদ্দিন।


তৎমধ্যে রাজাপালং নৌকা প্রতীকের ১জন, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ হাতপাখা ১জন, স্বতন্ত্র প্রার্থী ২জন। সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে ৮জন, সাধারণ সদস্য পদে ৬২জন।


জালিয়া পালং ইউনিয়ন পরিষদে নৌকা প্রতীকের ১জন, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ হাতপাখা ১জন, স্বতন্ত্র প্রার্থী ০৯জন। সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে ১৪জন, সাধারণ সদস্য পদে ৫১জন।


পালংখালী ইউনিয়ন পরিষদে নৌকা প্রতীকের ১জন, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ হাতপাখা ১জন, স্বতন্ত্র প্রার্থী ০৫ জন। সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে ১৩জন, সাধারণ সদস্য পদে ৬৮জন।


হলদিয়া পালং ইউনিয়ন পরিষদে নৌকা প্রতীকের ১জন, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ হাতপাখা ১জন, স্বতন্ত্র প্রার্থী ০৭জন। সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে ১৪জন, সাধারণ সদস্য পদে ৭১জন।


রত্নাপালং ইউনিয়ন পরিষদে নৌকা প্রতীকের ১জন, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ হাতপাখা ১জন, স্বতন্ত্র প্রার্থী ৩ জন। সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে ০৮জন, সাধারণ সদস্য পদে ৪৭জন।


মনোনয়ন পত্র দাখিল শেষে নিজের জয়ের ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী দাবি করে রাজাপালং ইউনিয়ন পরিষদের নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী বলেন, তিনি আবারো জনগণের ভোটে বিপুল ব্যবধানে জয়লাভ করবেন।


রাজাপালং ইউনিয়নের স্বতন্ত্র প্রার্থী সাদমান জামী চৌধুরী বলেন, সুস্থ অবাধ নিরপেক্ষ নির্বাচন হলে ৭৫% ভোট পেয়ে তিনি নির্বাচিত হবেন৷


পালং খালী ইউনিয়নের নৌকা প্রার্থী এম এ মঞ্জুর বলেন, উন্নয়নের প্রতীক নৌকা নিয়ে তিনি এবার চেয়ারম্যান নির্বাচিত হবেন।


পালংখালী ইউনিয়নের স্বতন্ত্র প্রার্থী এম গফুর উদ্দিন চৌধরী বলেন, তিনি দীর্ঘিদন যাবৎ চেয়ারম্যান হিসেবে নয়, জনগণের খাদেম হিসেবে কাজ করে গেছেন। জনগণের স্বতঃস্ফূর্ত সমর্থনের মধ্যদিয়ে তিনি আবারো চেয়ারম্যান নির্বাচিত হবেন বলে শতভাগ আশাবাদী।


রত্নাপালং ইউনিয়নের নৌকার প্রার্থী নুরুল হুদা বলেন সকল লোভ লালসান উর্ধে উঠে জনগণ তাকে ভোট দেবেন৷


এভাবে প্রত্যেক প্রার্থী জয়ের ব্যাপারে আশাবাদ ব্যক্ত করতে দেখা যায়।


উপজেলা নির্বাচন অফিসার ও রিটার্ণিং কর্মকর্তা ইরফান উদ্দিন বলেন মনোনয়নের শেষ দিন পর্যন্ত ৫ ইউনিয়নে ৩৬জন চেয়ারম্যান প্রার্থী, সংরক্ষিত মহিলা সদস্য হিসেবে ৫৭জন এবং সাধারণ সদস্য পদে ২৯৯জন মনোনয়ন পত্র দাখিল করেছেন।


তিনি আরো বলেন, আগামী ২১ অক্টোবর মনোনয়ন যাচাই-বাছাই ২১ অক্টোবর, আপিল ২৪ অক্টোবর, প্রত্যাহার ২৭ অক্টোবর এবং ভোট গ্রহণ ১১নভেম্বর।

ukhiyakhobor


শেয়ার করুন

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.

0 coment rios:

ধন্যবাদ আপনার সচেতন মন্তব্যের জন্য।