সোমবার, ৮ নভেম্বর, ২০২১

রোহিঙ্গাদের অপরাধ কর্মকাণ্ড থেকে দূরে থাকতে হুশিয়ারি দিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক ::




পর্যটকদের নিরাপত্তা ও পর্যটন শিল্পের বিকাশে ভূমিকা রাখছে পুলিশের বিশেষায়িত ইউনিট ট্যুরিস্ট পুলিশ। গত রবিবার (৬ নভেম্বর) ছিল এ ইউনিটের ৮ম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী।


এ উপলক্ষে সোমবার (৮ নভেম্বর) বিকালে কক্সবাজার সমুদ্রসৈকতে বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানমালার মধ্য দিয়ে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন শুরু হয়।


বিকালে সমুদ্র সৈকতের সুগন্ধা থেকে লাবণী পর্যন্ত বর্ণাঢ্য র‌্যালির মধ্য দিয়ে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর কর্মসূচি শুরু হয়। এতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান এমপি প্রধান অতিথি হিসেবে র‌্যালি উদ্বোধন করেন।


উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেন, বাংলাদেশে অবস্থান করা রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠি কোনভাবেই অপরাধের দিকে যাবেন না। ইয়াবার সাথে জড়িত হবেন না। আমাদের নতুন প্রজম্মের যুব সমাজকে রক্ষা করতে হবে এই ইয়াবা থেকে।


মিয়ানমারের জনগোষ্ঠীকে জানাতে চাই সাংবাদিক ভাইদের মাধ্যমে, সমস্ত অপরাধ থেকে যেন দূরে থাকে। তারা এখানে আছে- হানাহানি করলে, রক্তপাত ঘটানো আর মাদক আনা-নেয়া করলে তাদের বিরুদ্ধে আমরা আইনগত ব্যবস্থ গ্রহণ করবো।


মন্ত্রী আরও বলেন, ট্যুরিস্ট পুলিশ আরো শক্তিশালী হবে। আরো জনগণের কাছে এসে সেবা দিবে। এটাই আমি আশা করি। পর্যটকদের সেবায় আরো এগিয়ে যাবে।


ট্যুরিস্ট পুলিশের প্রধান ডিআইজি মোর্শেদুল আনোয়ার খান বলেন, কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতকে ব্র্যান্ডিং করার লক্ষ্যে পর্যটন আকর্ষণ বাড়াতে আমরা নিরলসভাবে কাজ করছি। ইতোমধ্যে পর্যটকদের বিশ্বমানের সেবা ও নিরাপত্তা প্রদানের মাধ্যমে তাদের আস্থা অর্জনে ট্যুরিস্ট পুলিশ সক্ষম হয়েছে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।


উল্লেখ্য, দেশি-বিদেশি পর্যটকদের বিশ্বমানের পর্যটন সেবা ও নিরাপত্তা প্রদানের মাধ্যমে দেশের পর্যটন শিল্প বিকাশের লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় ৬ নভেম্বর ২০১৩ সালে বাংলাদেশ পুলিশের বিশেষায়িত ইউনিট হিসেবে আত্মপ্রকাশ করে ট্যুরিস্ট পুলিশ।

ukhiyanews24


শেয়ার করুন

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.

0 coment rios:

ধন্যবাদ আপনার সচেতন মন্তব্যের জন্য।