বুধবার, ১৫ ডিসেম্বর, ২০২১

খাবার খেয়ে দুইভাই গেলেন ছাদে, এরপর বড় ভাই খুন

নিউজ ডেস্ক :



হাটহাজারীতে এক প্রবাসীর বিরুদ্ধে নিজের বড় ভাইকে জবাই করে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত সোমবার রাতে হাটহাজারী পৌরসভার ৮ নং ওয়ার্ডের উত্তর মিরেরখীল খন্দকারপাড়া এলাকার নূর জাহান ভবনে এ ঘটনা ঘটে।


নিহত ব্যক্তির নাম মো. এরশাদ (৪০)। তিনি উপজেলার মৃত খোরশেদ আলমের পুত্র। তাঁর মিমহা নামে ৬ বছর বয়সী একটি কন্যা সন্তান রয়েছে।


নিহতের স্ত্রী রহিমা বেগম ও শ্যালক মো. ইলিয়াস জানান, নিহতের হাটহাজারী কাচারী সড়কের এন জহুর শপিং সেন্টারে মীম কসমেটিকস নামে একটি দোকান রয়েছে। তার ছোট ভাই ওমান প্রবাসী মো. মঞ্জু প্রবাস থেকে ফোনে বড় ভাই এরশাদকে টাকার জন্য হুমকি দিতেন। গত শুক্রবার মঞ্জু প্রবাস থেকে বাড়িতে আসেন। সোমবার রাতে দুই ভাই একসাথে খাবার খায়। খাওয়ার পর দুই ভাই ভবনের ছাদে ওঠে। কিছুক্ষণ পর প্রবাস থেকে আসা ছোট ভাই মঞ্জু শোর চিৎকার করে বলতে থাকে মুখোশধারী কিছু লোক তার বড় ভাই ব্যবসায়ী এরশাদকে ছুরিকাঘাত করে, তাকে মারধর করে পালিয়ে গেছে। তার শোর চিৎকার শুনে নিহতের স্ত্রী ও শ্যালক ছাদের উপরে উঠে এরশাদকে মৃত দেখতে পায়।


বিষয়টি রাতে থানা পুলিশ অবহিত করলে পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশের সুরুত হাল প্রতিবেদন তৈরী করে লাশ থানায় নিয়ে যায়। গতকাল ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়।


ঘটনাস্থল থেকে রক্তমাখা একটি ছুরি উদ্ধার করা হয়। পুলিশ ঘটনার সাথে জড়িত নিহতের ছোট ভাইকে আটক করেন। পৌরসভার ৮ নং ওয়ার্ডের সহায়ক কমিটির সদস্য সালাউদ্দিন মানিক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।


থানার ওসি (তদন্ত) রাজিব শর্মা গণমাধ্যমকে বলেন, হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় নিহতের স্ত্রী রহিমা বেগম বাদী হয়ে মঞ্জুসহ কয়েক জনকে বিবাদী করে থানায় মামলা দায়ের করেছেন। আটককৃতকে মঙ্গলবার কোর্ট হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।


মঞ্জু বিজ্ঞ আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে নিজে হত্যার ঘটনা স্বীকার করেন। এ ব্যাপারে পুলিশী তদন্ত অব্যহত রয়েছে।

কক্সবাজার জার্নাল


শেয়ার করুন

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.

0 coment rios:

ধন্যবাদ আপনার সচেতন মন্তব্যের জন্য।