রবিবার, ২০ ফেব্রুয়ারী, ২০২২

উখিয়ায় অবৈধ স্হাপনা উচ্ছেদে মাইকিং, আতংকে ব্যবসায়ীরা




কক্সবাজার-টেকনাফ সড়কের কোট বাজার সহ উখিয়ার গুরুত্বপূর্ণ স্টেশনে আগামী ২২ ফেব্রুয়ারি মঙ্গলবার অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ উচ্ছেদ করা হবে। গত দু’দিন ধরে সওজ বিভাগ মাইকিং করছে । উচ্ছেদকে কেন্দ্র করে মার্কেটের মালিক ও ব্যবসায়ীদের মনে আতঙ্ক সহ উৎকণ্ঠা দেখা দিয়েছে।
কক্সবাজার সড়ক ও জনপথ বিভাগের ( সওজ) নির্বাহী প্রকৌশলী পিন্টু চাকমা জানান, কোটবাজার সহ টেকনাফ সড়কে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করতে সকল প্রকার প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে । ইতিমধ্যে সরকারি সার্ভেয়ারের মাধ্যমে কোট বাজারে স্টেশনে সড়কের উভয় পাশে কত ফুট উচ্ছেদ করা হবে তা লাল রং দিয়ে ডিমারকেশন করা হয়েছে । এখনও সময় আছে দোকানের মালামাল নিয়ে যাওয়ার জন্য ব্যবসায়ীদের আহবান জানান তিনি।
খোঁজ খবর নিয়ে জানা গেছে, যানজট কমাতে সড়ক প্রশস্তকরণের উদ্যোগ নিয়েছে সেতু ও সড়ক মন্ত্রণালয়। এর অংশ হিসাবে গত দুই সপ্তাহ পূর্বে সওজ বিভাগের সার্ভেয়ার টিম পরিমাপ করে লাল রং দিয়ে ডিমারকেশন করেন ।

কোট বাজারের অনেক ব্যবসায়ীরা জানান , লাল রং অনুযায়ী উচ্ছেদ করা হলে শত শত দোকানি ক্ষতিগ্রস্ত হবে । জায়গার মালিক দুবাই প্রবাসী শফিকুল রহমান শফি অভিযোগ করে বলেন , সরকারের প্রয়োজনে আমরাও জায়গা দিতে রাজি আছি । কিন্তু আমাদের নিজস্ব খতিয়ানি জায়গার ক্ষতিপূরণ দেয়ার নিশ্চয়তা দিতে হবে ।
সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে ২০১৮ সালে কক্সবাজার সহজ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী বাদী হয়ে ৭৫ জন ব্যক্তিকে বিবাদী করে কক্সবাজার আদালতে মামলা দায়ের করেন । যার মামলা নম্বর ২০৭/২০১৮ এবং অপর ৩৭২ /২০২১ ইং।

মামলায় উল্লেখ করেন সরকারি অধিগ্রহণকৃত ১৩. ৫০ একর জায়গায় বিবাদী গন জবর দখল করে স্থাপনা তৈরি করেছে ।
অপরদিকে জায়গার মালিকানা দাবি করে অনেকেই সরকারকে বিবাদী করে আদালতে মামলা গড়িয়েছে। আবার অনেকেই মামলার আদেশ সাইন বোর্ড দিয়ে টাঙ্গিয়ে দিয়েছে ।


উচ্ছেদ প্রসঙ্গে সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী
প্রকৌশলী পিন্টু চাকমা বলেন, আগামী মঙ্গলবার উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করতে বুলডোজার সহ অত্যাধুনিক ক্রাইন আনা হয়েছে । উচ্ছেদ অভিযানে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করা হবে। গত ৩ দিন ধরে দোকান থেকে মালমাল সরিয়ে নেওয়ার জন্য মাইকিং করা হচ্ছে । অপর এক প্রশ্নের জবাবে , নির্বাহী প্রকৌশলী আরো জানান সরকারি অধিগ্রহণকৃত জায়গায় , প্রভাবশালী মহল নিজেদের জায়গা দাবি করে মার্কেট ও বহুতল ভবন নির্মাণ করছে। যা সম্পূর্ণ অবৈধ । আমরা এসব অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করব ।
এদিকে সরকারি জায়গা বেদখল মুক্ত করতে উচ্ছেদ প্রক্রিয়াকে সাধুবাদ জানিয়েছেন সচেতন নাগরিক সমাজ । সুশীল সমাজের মতে পক্ষপাতিত্ব না করে একনীতির ভিত্তিতে সড়কের উভয় উচ্ছেদ করা হোক ।
Ukhiyanews


শেয়ার করুন

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.

0 coment rios:

ধন্যবাদ আপনার সচেতন মন্তব্যের জন্য।