বুধবার, ৩০ মার্চ, ২০২২

২০ মে থেকে বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোটার তালিকা হালনাগাদ




বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোটার তালিকা হালনাগাদ কাজ শুরু হচ্ছে আগামী ২০ মে। তিন সপ্তাহ ধরে দেশব্যাপী তথ্য সংগ্রহের কাজ চলবে।


নির্বাচন কমিশন এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে রোববার জানিয়েছেন ইসির অতিরিক্ত সচিব অশোক কুমার দেবনাথ।


কাজী হাবিবুল আউয়াল নেতৃত্বাধীন ইসি দায়িত্ব নেওয়ার এক মাসের মধ্যে হালনাগাদের এ সিদ্ধান্ত এল।


ইসির অতিরিক্ত সচিব জানান, ২০১৯ সালের পর এ বছর বাড়ি বাড়ি গিয়ে হালনাগাদের কাজ শুরু হচ্ছে। এ সময় নতুন ভোটারদের অন্তর্ভুক্তি, মৃতদের বাদ ও স্থানান্তরের কাজ চলবে।


২০০৭ সালের ১ জানুয়ারি বা তার আগে যাদের জন্ম, এমন ভোটারযোগ্য নাগরিকদের তথ্য নিবন্ধনের জন্য সংগ্রহ করা হবে। ১৫-১৭ বছর বয়সীদের তথ্য সংগ্রহ হবে। ১৮ বছর বয়স হলেই স্বংক্রিয়ভাবে তারা ভোটার তালিকাভুক্ত হবে।



এ কর্মকর্তা জানান, তিন সপ্তাহ পর্যন্ত বাড়ি বাড়ি গিয়ে তথ্য সংগ্রহের কাজ চলবে। এরপর নির্ধারিত নিবন্ধন কেন্দ্রে ছবি তোলা, দশ আঙুল ও চোখের আইরিশের ছাপ নেওয়া হবে।


কখন, কোথায় তথ্য সংগ্রহের কাজ চলবে, তা গণমাধ্যমে ও স্থানীয়ভাবে পরে জানিয়ে দেবে কমিশন।


সব প্রক্রিয়া শেষ করে খসড়া তালিকা প্রকাশ, দাবি আপত্তি শেষে আগামী বছর মার্চে চূড়ান্ত ভোটার তালিকা প্রকাশ হবে।


২০২৩ সালের ২ মার্চে যেসব নতুন ভোটার চূড়ান্ত ভোটার তালিকাভূক্ত হবেন (১ জানুয়ারি ২০০৫ বা তার আগে যাদের জন্ম) তারা দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে ভোট দিতে পারবেন।



সবশেষ ২০১৯ সালে বাড়ি বাড়ি গিয়ে নির্ধারিত পদ্ধতিতে হালনাগাদের কাজ চলে। এরপর বছরব্যাপী থানা নির্বাচন অফিসে ভোটার তালিকাভক্ত হওয়ার সুযোগ থাকে।


অনলাইনে ভোটার তালিকাভুক্ত হওয়ার এ সুযোগ বরাবরের মতো বিদ্যমান রয়েছে।


এ বছর ২ মার্চ চূড়ান্ত ভোটার তালিকার পর এখন মোট ভোটার সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১১ কোটি ৩২ লাখ ৮৭ হাজার ১০ জনে।


দেশের মোট ভোটারের মধ্যে ৫ কোটি ৭৬ লাখ ৮৯ হাজার ৫২৯ জন পুরুষ, ৫ কোটি ৫৫ লাখ ৯৭ হাজার ২৭ জন নারী এবং ৪৫৪ জন হিজড়া ভোটার রয়েছেন।

bdnews24


শেয়ার করুন

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.

0 coment rios:

ধন্যবাদ আপনার সচেতন মন্তব্যের জন্য।