বৃহস্পতিবার, ২৮ এপ্রিল, ২০২২

উখিয়ায় অস্ত্র ও গোলাবারুদসহ চোরাচালান চক্রের দুজন সন্ত্রাসী গ্রেপ্তার






কক্সবাজারের উখিয়া উপজেলার রাজাপালং এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে বিভিন্ন ধরনের দেশীয় অস্ত্র ও গোলাবারুদসহ আন্তঃজেলা অস্ত্র চোরাচালান চক্রের দুই সন্ত্রাসীকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব-১৫। এ সময় ৩টি ওয়ানশুটারগান, ৩টি এসবিবিএল, ২ রাউন্ড তাজা কার্তুজ ও ৩ রাউন্ড খালি খোসা উদ্ধার করা হয়।


বৃহস্পতিবার ভোররাতে এ অভিযান পরিচালনা করে র‍্যাব।


গ্রেপ্তার হওয়া আসামিরা হলেন গোপালগঞ্জ জেলার মোকসুদপুর উপজেলার মহারাজ ইউনিয়নের বনগ্রামের বাসিন্দা মৃত আব্দুল লতিফ মিয়ার ছেলে ফরহাদ হাসান আরিফ (৪৩) এবং মোছনা ইউনিয়নের আইকদিয়া এলাকার মৃত আলেক শেখের ছেলে মোঃ আবুল শেখ (৩৪)।


র‍্যাব বলছে, তারা গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে জানতে পারে সম্প্রতি কক্সবাজারের সীমান্তবর্তী-পাহাড়ী অঞ্চল থেকে বিভিন্ন জেলার কতিপয় অপরিচিত ব্যক্তি অবৈধ অস্ত্র-গোলাবারুদ সংগ্রহ করে সন্ত্রাসী কার্যক্রম-নাশকতার উদ্দেশে দেশের অন্যত্র পাচার করে আসছে এবং স্থানীয় সন্ত্রাসীদের সাথে মিলে সন্ত্রাসী গ্রুপ তৈরি করে নাশকতা তৈরির প্রস্তুতি নিচ্ছে। ওই তথ্যের ভিত্তিতে অপরাধীদের গ্রেপ্তারের উদ্দেশে র‌্যাব কক্সবাজারের বিভিন্ন এলাকায় গোয়েন্দা নজরদারি বৃদ্ধি করে।


কক্সবাজার র‍্যাব-১৫ এর সহকারী পরিচালক (আইন ও গণমাধ্যম) মোঃ বিল্লাল উদ্দিন জানান, র‍্যাব গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে কতিপয় অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী উখিয়া উপজেলার রাজাপালং ইউপিস্থ উখিয়া ডিগ্রী কলেজের পশ্চিমে শিলেরছড়া এলাকায় একটি জঙ্গলের ভেতর অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড করার উদ্দেশে কিছু লোক অবস্থান করছে। এ সময় র‍্যাবের একটি টিম অভিযান চালিয়ে দুজনকে গ্রেপ্তার করে। তাদের কাছে একটি বস্তা পাওয়া যায় যেখানে ৩টি ওয়ানশুটারগান, ৩টি এসবিবিএল, ২ রাউন্ড তাজা কার্তুজ ও ০৩ রাউন্ড খালি খোসা পাওয়া যায়।


গ্রেপ্তার আসামিদের বরাত দিয়ে মোঃ বিল্লাল উদ্দিন জানান, উদ্ধারকৃত অস্ত্র-গোলাবারুদ ও কক্সবাজারে তাদের অবস্থানের কারণ জিজ্ঞাসা করলে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা জানায়, বিভিন্ন দেশীয় অস্ত্র-গোলাবারুদ সংগ্রহ করার জন্য তারা কক্সবাজারে অবস্থান করছে এবং সন্ত্রাসী কার্যক্রম-নাশকতা তৈরির জন্য তারা দেশের বিভিন্ন জেলায় (গোপালগঞ্জ, মাদারীপুর, বাগেরহাট, ফরিদপুর, নরাইল) অস্ত্র সরবরাহ করে আসছিল। গ্রেপ্তার আসামিরা আরো জানায়, তারা অবৈধ অস্ত্র চোরাচালান-সন্ত্রাসী গ্রুপের সদস্য এবং উল্লেখিত জেলাগুলো ছাড়াও দেশের বিভিন্ন জায়গায় তাদের অস্ত্র চোরাচালান চক্রের সিন্ডিকেটের সদস্য রয়েছে। এই সিন্ডিকেটের মাধ্যমেই তারা দেশের বিভিন্ন প্রান্তে সন্ত্রাসীদের নিকট অস্ত্র সরবরাহ করে থাকে বলে জানায়।


গ্রেপ্তার আসামিদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য উখিয়া থানায় লিখিত এজাহার দাখিল করে পুলিশের নিকট সোপর্দ করা হয়েছে বলে জানান র‍্যাবের এই কর্মকর্তা।


শেয়ার করুন

Author:

Etiam at libero iaculis, mollis justo non, blandit augue. Vestibulum sit amet sodales est, a lacinia ex. Suspendisse vel enim sagittis, volutpat sem eget, condimentum sem.

0 coment rios:

ধন্যবাদ আপনার সচেতন মন্তব্যের জন্য।